Wednesday , January 20 2021
Home / GK / সংবিধানের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

সংবিধানের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

1.🗣️ 🇮🇳মানবেন্দ্রনাথ রায় ভারতে গণপরিষদ গঠনের কথা প্রথম বলেছিলেন।

2.🗣️🇮🇳1946 সালের 6 ডিসেম্বর গণপরিষদ বা সংবিধান সভা গঠিত হয়।

3.🗣️🇮🇳মন্ত্রী মিশন পরিকল্পনার  ভিত্তিতে সংবিধান সভা/গণপরিষদ গঠিত হয়।

4.🗣️🇮🇳1946 সালের 9 ডিসেঃ গণপরিষদের প্রথম অধিবেশন বসেছিল। কিন্তু প্রথম অধিবেশনে মুসলিম লিগের প্রতিনিধিরা যোগদান করেননি।

5.🗣️🇮🇳মন্ত্রী মিশন অনুযায়ী গণপরিষদে মোট 389 জন সদস্য থাকবে এর মধ্যে ব্রিটিশ শাসিত অঞ্চল/প্রদেশ থেকে 292জন, চিফ কমিশনার শাসিত প্রদেশগুলি থেকে 4 জন এবং দেশীয় রাজ্যগুলি থেকে 93 জন প্রতিনিধিত্ব করবে, দেশ ভাগের পর 299 জন।

 

6.🇮🇳 মুসলিম লীগের অনুপস্থিতিতে 207/211জন প্রতিনিধি নিয়ে কাজ শুরু হয়। (সংখ্যা টা অজানা সাদা ক্যানভাস)

7.🗣️🇮🇳কংগ্রেস সভাপতি জে বি কৃপালিনীর প্রস্তাবে ড. সচ্চিদানন্দ সিংহকে গণপরিষদের অস্থায়ী সভাপতি করে কাজ শুরু হয়।

8.🗣️🇮🇳1946 খ্রিস্টাব্দের 9 ডিসেম্বর দিল্লির কনস্টিটিউশন হলে গণপরিষদের প্রথম অধিবেশন বসেছিল।

9.🇮🇳গণপরিষদের মোট 11টি অধিবেশন হয়েছিল।

10.🇮🇳1950 খ্রিস্টাব্দের 24 শে জানুয়ারি গণপরিষদের  সর্বশেষ অধিবেশন বসেছিল।

11.🇮🇳গণপরিষদের স্থায়ী সভাপতি ছিলেন রাজেন্দ্র প্রসাদ।

12.🇮🇳গণপরিষদের সহ-সভাপতি ছিলেন এইচ.সি.মুখার্জি এবং কে. টি.কৃষ্ণমাচারি।

 

13.🇮🇳🐘হাতি গণপরিষদের প্রতীক চিহ্ন ছিল।

14.🇮🇳ভারতের সংবিধানের জনক বলা হয় ড. বি.আর.আম্বেদকরকে।

15.🇮🇳ভারতের সংবিধান কার্যকরী হয়1950 খ্রিস্টাব্দে 26শে জানুয়ারি।

16.🇮🇳ভারতীয় সংবিধানের চূড়ান্ত ব্যাখ্যা কর্তা বলা হয় সুপ্রীম কোর্টকে।

17.🇮🇳368 নম্বর ধারা অনুযায়ী ভারতের সংবিধান সংশোধন করা হয়।

18.🇮🇳ভারতীয় সংবিধানে রাষ্ট্র পরিচালনার নির্দেশ মূলক নীতি আয়ারল্যান্ডের দেশের সংবিধানের অনুকরনণে থেকে গৃহীত হয়েছে।

18.🇮🇳সম্প্রতি ভারতীয় সংবিধান থেকে 370 ও 35A ধারা বাতিল করা হয়েছে।

19.🇮🇳ভারতের সংবিধানের 280 নম্বর ধারায় অর্থ কমিশন গঠনের কথা বলা হয়েছে।

 

20.🗣️🇮🇳ভারতের সংবিধান তৈরী হতে মোট 2বছর 11 মাস 18 দিন সময় লেগেছিল।

21.🗣️🇮🇳  সংবিধান ছিলো 395 ধারা 8 তফসিল 22 টি ভাগ যা বর্তমানে বেড়ে হয়েছে 470 ধারা 12 তফসিল 25 টি ভাগ( উইকিপিডিয়া) 25 জানুয়ারি 2020 পর্যন্ত সংশোধন হয়েছে 104 বার।

22.🗣️🇮🇳1949 খ্রিস্টাব্দে 26 শে নভেম্বর ভারতের সংবিধান গৃহীত হয়।

23.🗣️🇮🇳1930 সালে 26 জানুয়ারি ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস কর্তৃক পূর্ণ স্বরাজের সংকল্প ঘোষিত/গৃহীত হয়েছিল বলে 26 শে জানুয়ারী দিনটিকে সংবিধান কার্যকর করার জন্য বেছে নেওয়া হয়েছিল।

24.🗣️🇮🇳1947 সালের 28 শে আগস্ট একটি স্থায়ী সংবিধান রচনার জন্য ড্রাফটিং কমিটি গঠন করা হয়। এই কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন ভীমরাও রামজী আম্বেদকর।

25.🗣️🇮🇳চূড়ান্তভাবে সংবিধান গৃহীত হওয়ার আগে গণপরিষদ এই খসড়া সংবিধান আলোচনার জন্য মোট 166 দিন সময় ব্যয় হয়।( 2 বছর,11 মাস,18 দিন সময়ে)।

 

26.🗣️🇮🇳24শে জানুয়ারি 1950 সালে  গণপরিষদের 284 জন সদস্য চূড়ান্ত সংবিধানের হাতে-লেখা দু’টি নথিতে (একটি ইংরেজি ও অপরটি হিন্দি) স্বাক্ষর করেন।

27.🗣️🇮🇳‘প্রজাতন্ত্র’ শব্দের প্রতিশব্দ হল ‘REPUBLIC’। এটি এসেছে লাতিন শব্দবন্ধ ‘RESPUBLICA’ শব্দবন্ধটি থেকে, এর আক্ষরিক অর্থ ‘জনগণ সংক্রান্ত একটি বিষয়’।

28.🗣️পৃথিবীর বৃহত্তম লিখিত সংবিধান হল ভারতের সংবিধান।

29.🗣️1950 সালের 24শে জানুয়ারী গণপরিষদের অধিবেশনে ড. রাজেন্দ্র প্রসাদ ভারতের প্রথম রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন।

30.🗣️Article 1: কেন্দ্র, রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের নাম।

31.🗣️Article 2: নতুন রাজ্য গঠন।

32.🗣️Article 3 নতুন রাজ্যের গঠন, পদ্ধতি, সীমানা নির্ধারন , নামকরন।

33.🗣️Article 4: নতুন রাজ্যের আইন রচনা।

 

34.🗣️Article (5-11): নাগরিকত্ব

35.🗣️Article (12-35): মৌলিক অধিকার।

36.🗣️Article 14:আইনের চোখে সবার সমান অধিকার এবং সমান সংরক্ষনের ব্যবস্থা।

37.🗣️Article 15/C): মহিলা এবং শিশুদের জন্য যানবাহনে সিট সংরক্ষনের ব্যবস্থা।

38.🗣️Article 16: সরকারী চাকুরির ক্ষেত্রে সবার সমান সুযােগের ব্যবস্থা।

39.🗣️Article 17: অস্পৃশ্যতা দূরীকরন।

40.🗣️Article 18: বিদ্যা বিষয়ক বা সামরিক খেতাব ছাড়া রাষ্ট্র অন্য কোন খেতাব দান করতে পারবে না। (রাজা, মহারাজা, পন্ডিত ইত্যাদি বিলােপ করা হল)

 

41.🗣️Article 19:বাক স্বাধীনতার অধিকার।

42.🗣️Article 20:অপরাধীর অপরাধ সংক্রান্ত তিনটি অধিকারের কথা আছে।

43.🗣️Article 21:জীবনের নিরাপত্তা ও ব্যক্তিগত স্বাধীনতার কথা উল্লেখ আছে।

44.🗣️Article 21(A):শিক্ষার অধিকার।

45.🗣️Article 22:গ্রেফতার ও আটক সংক্রান্ত কিছু অধিকার বলা আছে।

46.🗣️Article 23:মানুষ কেনাবেচা বন্ধ করা এবং জোর করে কাজ করানাে বন্ধ করার ব্যবস্থা।

47.🗣️Article 24:শিশুশ্রম বন্ধ করা হয়েছে।

48.🗣️Article: 25 থেকে 28 ধর্মীয় স্বাধীনতার অধিকার যেমন ধর্মবিশ্বাস, ধর্মানুষ্ঠান ও ধর্মপ্রচারের অধিকার।

 

49.🗣️Article 31(1):সম্পত্তির অধিকার আগে এই ধারায় ছিল। বর্তমানে সম্পত্তির অধিকার আর মৌলিক অধিকার নেই। তাই জন্য সম্পত্তির অধিকারকে বর্তমানে 300(A) ধারায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

50.🗣️Article 32:সংবিধানের মৌলিক অধিকার প্রতিবিধানের জন্য সুপ্রীমকোর্ট 5 রকম লেখ, নির্দেশ বা রিট জারী করতে পারে।

51.🗣️Article 40:গ্রাম পঞ্চায়েতের ব্যবস্থা।

52.🗣️Article 41: বেকার ও বার্ধক্য ভাতা।

53.🗣️Article 45: অবৈতনিক বাধ্যতামূলক শিশুশিক্ষা।

54.🗣️Article 47:রাজ্যে মদ নিষিদ্ধ করার নির্দেশ।

55.🗣️Article 48(A): পরিবেশ, বন এবং বন্যপ্রানী রক্ষা।

 

56.🗣️Article 49: মনুমেন্ট, জাতীয় সৌধ এবং ঐতিহাসিক স্থান সংরক্ষন ও রক্ষা

57.🗣️🚩Article 51(A):11 টি মৌলিক কর্তব্য এই ধারায় বর্নিত আছে।

58.🗣️Article 52: ভারতের রাষ্ট্রপতি।

59.🗣️Article 54:রাষ্ট্রপতি নির্বাচন।

60.🗣️Article 55: রাষ্ট্রপতি নির্বাচন পদ্ধতি

61.🗣️Article 61:রাষ্ট্রপতির অপসারণ বা ইমপিচমেন্ট পদ্ধতি।

62.🗣️Article 72:রাষ্ট্রপতি কোন আসামীর মৃত্যুদন্ড রদ করতে পারে এই ধারা অনুযায়ী।

 

63.🗣️Article 75(3): মন্ত্রীপরিষদ লােকসভার নিকট দায়বদ্ধ থাকবে।

64.🗣️Article 76: অ্যাটর্নি জেনারেল অফ ইন্ডিয়া।

65.🗣️Article 93:স্পিকার এবং ডেপুটি স্পিকার।

66.🗣️Article 108: কিছু বিশেষ ক্ষেত্রে সংসদের যৌথ অধিবেশন।

67.🗣️Article 110: অর্থ বিল।

68.🗣️Article 112: বাজেট।

69.🗣️Article 123: সংসদের অধিবেশন বন্ধ থাকলেও রাষ্ট্রপতি অর্ডিন্যান্স জারি

করতে পারে।

 

70.🗣️Article 124: সুপ্রীম কোর্ট।

71.🗣️Article 148: কম্পট্রোলার এন্ড অডিটর জেনারেল। (C&AG)

72.🗣️Article 153: রাজ্যপাল

73.🗣️Article 165: অ্যাডভােকেট জেনারেল।

74.🗣️Article 214: হাইকোর্ট।

75.🗣️Article 226: কিছু বিশেষ ক্ষেত্রে হাইকোর্টের রিট জারি করার ক্ষমতা।

76.🗣️Article 243:. পঞ্চায়েত।

77.🗣️Article 243A:. গ্রাম সভা।

78.🗣️Article 266.: Consolidated Funds and public accounts of India and of the States

 

79.🗣️Article 267:. আপকালীন তহবিল

80.🗣️Article 280:. অর্থ কমিশন।

81.🗣️Article 300A:. সম্পত্তির অধিকার

82.🗣️Article 312: সর্বভারতীয় প্রবেশিকা পরিক্ষা (IAS)

83.🗣️Article 315: কেন্দ্র এবং রাজ্যের পাবলিক সার্ভিস কমিশন। (UPSC & PSC)

84.🗣️Article 324:. ইলেকশন কমিশন।

85.🗣️🚩Article 326:. প্রত্যেক প্রাপ্তবয়স্ক নাগরিককে ভােটাধিকার দেওয়া হয়েছে।

 

86.🗣️🚩Article 335:. চাকরির ক্ষেত্রে SC & CT দের সংরক্ষনের ব্যবস্থা।

87.🗣️Article 343:. কেন্দ্রের সরকারী ভাষা।

88.🗣️Article 352: দেশে জাতীয় জরুরী অবস্থা ঘােষনা

89.🗣️Article 356:. রাজ্যে জরুরী অবস্থা ঘােষনা।

90.🗣️Article 360:. আর্থিক জরুরী অবস্থা ঘােষনা।

91.🗣️Article 368: সংসদের অনুমােদন সাপেক্ষে সংবিধান সংশােধনের অধিকার।

 

92.🗣️🇮🇳 প্রথম সংবিধানে 14 টি ভাষাকে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছিল।

93.🗣️🇮🇳1967 সালে 21 তম সংবিধান সংশােধনী  দ্বারা সিন্ধি ভাষাটি সংযােজিত হয়।

94.🗣️1992 সালে 71 তম সংবিধান সংশােধনীর মাধ্যমে কোঙ্কনী, মনিপুরী ও নেপালী ভাষা সংযুক্ত হয়।

95.🗣️🇮🇳2003 সালে 92 তম সংবিধান সংশােধনী দ্বারা সাঁওতালী মৈথিলী, বােডাে ও ডােগরী ভাষাকে স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

96.🗣️🇮🇳বর্তমানে সংবিধানে স্বীকৃত 22 টি ভাষা –

1. আসামী 2.বাংলা 3.গুজরাটী 4.হিন্দী 5.কন্নড় 6.কাশ্মিরী 7.কোঙ্কনী 8.মালায়ালম 9.মনিপুরী 10.মারাঠী 11.নেপালী 12.ওড়িয়া 13.পাঞ্জাবী 14.সংস্কৃত 15. সিন্ধি 16. তামিল 17. তেলেগু 18.উর্দু 19.সাঁওতালী 20.বােডাে

21. মৈথিলী 22.ডােগরী

97.🗣️প্রথম সংবিধান সংশােধন করা হয় – 1951 সালে।

98.🗣️বর্তমানে সম্পত্তির অধিকার – আইনি অধিকার।

99.🗣️ভারতীয় সংবিধানের 52তম সংশােধনীতে দলত্যাগ বিরােধী আইনের |Anti-Defection Law] কথা বলা হয়েছে।

 

100.🇮🇳🚩2002 সালে 86 তম সংবিধান সংশোধনী অনুযায়ী শিক্ষার অধিকারকে মৌলিক অধিকারের স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে।

101.🇮🇳ভারতের সংবিধানে বর্তমানে মোট 6টি মৌলিক অধিকার আছে।

102.🇮🇳সংবিধানের মৌলিক অধিকার গুলি হলো :

🚩1. সাম্যের অধিকার (14 নং থেকে 18 নং অনুচ্ছেদ)

🚩2. স্বাধীনতার অধিকার (19 নং থেকে 22 নং অনুচ্ছেদ)

🚩3. শোষণের বিরুদ্ধে অধিকার  (23 নং ও 24নং অনুচ্ছেদ)

🚩4. ধর্মীয় স্বাধীনতার অধিকার  (25 নং থেকে 28 নং অনুচ্ছেদ)

🚩5. সংস্কৃতি ও শিক্ষা-বিষয়ক অধিকার  (29 নং ও 30 নং অনুচ্ছেদ)

🚩6.সংবিধানের প্রতিবিধানের অধিকার  (32 নং  অনুচ্ছেদ ও 226 নং অনুচ্ছেদ)

 

103.🇮🇳1978 খ্রিস্টাব্দ 44 তম সংবিধান সংশোধনীর দ্বারা মৌলিক অধিকারের তালিকা থেকে সম্পত্তির অধিকার বাদ দেয়া হয়েছে।

104.🇮🇳শরণ সিং কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে ভারতীয় সংবিধানের “মৌলিক কর্তব্য” সংযোজিত হয়।

105.🇮🇳মৌলিক কর্তব্যের বিষয়টি 1976 সালে সংবিধানের 42 তম সংশোধনীতে সংবিধানের 4 এ অংশে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

106.🇮🇳1976 সালে 42তম সংশােধনীতে 10 টি মৌলিক কর্তব্যের কথা বলা হয়েছিল পরবর্তী 2002 সালে 86তম সংশােধনীতে 11তম কর্তব্য যোগ করা হয়।

 

107.🇮🇳ভারতের সংবিধানে উল্লেখিত মৌলিক কর্তব্যের সংখ্যা 11টি।

108.🇮🇳🚩একজন নাগরিক যে মৌলিক অধিকার ভোগ করেন, তার সাপেক্ষেই মৌলিক কর্তব্যের বিষয়টি সংবিধানে যোগ করা হয়েছে।

109.🇷🇺মৌলিক কর্তব্যের ধারণা  রাশিয়ার সংবিধান থেকে নেওয়া হয়েছে।

110.🇮🇳11টি মৌলিক কর্তব্য রয়েছে সেগুলি হল:

🚩1.সংবিধান মেনে চলা এবং তার ধারণা ও প্রতিষ্ঠান, জাতীয় পতাকা এবং জাতীয় সংগীতকে সম্মান করা।

🚩2.আমাদের স্বাধীনতা যুদ্ধের ধারণাগুলো যা আমাদের উদ্বুদ্ধ করে, সে আদর্শগুলি মেনে চলা।

🚩3.ভারতের সার্বভৌমত্ব, একতা এবং সংহতিকে রক্ষা করা এবং ঊর্ধ্বে তুলে ধরা ভারতের নাগরিকদের প্রাথমিক জাতীয় কর্তব্যের অন্যতম।

🚩4.দেশকে রক্ষা করা এবং দেশের প্রয়োজনে ডাক পড়লেই জাতীয় পরিষেবা প্রদান।

🚩5.ধর্ম-ভাষা- অঞ্চল-বা কোনও রকম বিভেদকে প্রশ্রয় না দিয়ে দেশের মানুষের মধ্যে সৌভ্রাতৃত্ব ও সংহতিকে ঊর্ধ্বে তুলে ধরা- মহিলাদের সম্মানহানিকর যে কোনও অভ্যাস পরিত্যাগ করা।

 

🚩6.আমাদের মিশ্র সংস্কৃতির ঐতিহ্যকে মূল্য দেওয়া ও তাকে রক্ষা করা- আমাদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য পৃথিবীর পবিত্রতম ও মূল্যবান ঐতিহ্যের অন্যতম, এ ঐতিহ্য পৃথিবীর ঐতিহ্যের অংশও বটে।

🚩7.বন, হ্রদ, নদী, এবং বন্যপ্রাণের মত জাতীয় পরিবেশকে রক্ষা করা ও তার উন্নতিসাধন করা, সমস্ত প্রাণের প্রতি সহমর্মিতা জ্ঞাপন।

🚩8.বৈজ্ঞানিক ভাবনা, মানবতা, জিজ্ঞাসা সত্তা এবং সংস্কারের উন্নতি সাধন।

🚩9.জনগণের সম্পত্তি রক্ষা করা এবং হিংসার পথ ত্যাগ করা।

🚩10.ব্যক্তিগত ও যৌথভাবে সমস্ত ক্ষেত্রে উৎকর্ষের জন্য সংগ্রাম যাতে দেশ ক্রমাগত উপর দিকে উঠতে পারে।

🚩11. 6 থেকে 14 বছর বয়সকালের মধ্যের শিশুকে পড়াশোনার ব্যবস্থা করা বাবা-মা বা অভিভাবকের দায়িত্ব।

111.🇺🇸ভারতের সংবিধানের প্রস্তাবনা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র দেশের অনুকরণে গৃহীত হয়েছে।

 

112.🇮🇳 ভারতীয় সংবিধানের প্রস্তাবনায় ভারতকে সার্বভৌম সমাজতান্ত্রিক ধর্মনিরপেক্ষ গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র ধরনের রাষ্ট্র বলা হয়েছে।

113.🇮🇳1976 খ্রী 42 তম সংবিধান সংশোধনী দ্বারা ভারতের সংবিধানের প্রস্তাবনা সংশোধনী করা হয়েছে।

114.🇮🇳এন.এ. পালকিওয়ালা ভারতের সংবিধানের প্রস্তাবনাকে সংবিধানের  “আইডেন্টিটি কার্ড ” বলে অভিহিত করেছেন।

115.🇮🇳ভারতের সংবিধানে মোট 12টি(মূল সংবিধানে অর্থাৎ প্রথমে ছিল আটটি) তফসিল আছে।

116.🇮🇳ব্রিটিশ সরকার প্রণীত ভারত শাসন আইন 1935 ভারতীয় সংবিধানে বেশি দেখা প্রভাব যায়।

 

117.🇮🇳বিধান পরিষদের প্রার্থীর কমপক্ষে 30 বছর বয়স প্রয়ােজন।

118.🇮🇳বিধানসভায় সর্বনিম্ন 60 জন সদস্য থাকতে পারেন।

119.🇮🇳বিধানসভার প্রার্থী হওয়ার জন্য কমপক্ষে 25 বছর বয়স প্রয়ােজন।

120.🇮🇳বিধানসভার সদস্য সংখ্যা 500 জন হতে পারে।

121.🇮🇳ব্যক্তি স্বাধীনতা রক্ষার জন্য একজন নাগরিক সুপীমকোর্ট যাবেন।

122.🇮🇳স্বাধীনতা, সমতা ও সৌভাতৃত্ব– নেওয়া হয়েছিল ফ্রান্সের সংবিধান থেকে।

123.🇮🇳পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনার কনসেপ্টটি নেওয়া হয়েছিল তত্‍কালীন সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে

124.🇮🇳ডিরেক্টিভ প্রিন্সিপালগুলি নেওয়া হয়েছিল আয়ারল্যান্ড থেকে।

 

125.🇮🇳সুপ্রিম কোর্টের কাজকর্ম যে নিয়মে চলে, তা নেওয়া হয়েছিল জাপান থেকে।

126.🇮🇳জনগণের মৌলিক অধিকার খর্ব করার নির্দেশ দিতে পারেন সাংসদের অনুমতি ক্রমে রাষ্ট্রপতি।

127.🇮🇳ভারতীয় সংবিধানের 214 নং ধারায় প্রত্যেক রাজ্যে একটি হাইকোর্ট স্থাপনের কথা বলা হয়েছে।.

128.🇮🇳ভারতের সংবিধান রচনার জন্য গণপরিষদ 13টি কমিটি গঠন করেছিল।

129.🇮🇳 প্রস্তাবনাকে ভারতের সংবিধানের প্রান বলা হয়।

130.🇮🇳ভারতীয় নাগরিকতা আইন পাস হয় 1955 সালে।

 

131.🇮🇳কেন্দ্রীয় আইনসভা লোকসভা, রাজ্যসভা ও রাষ্ট্রপতি নিয়ে গঠিত হয়।

132.🇮🇳লােকসভা রাষ্ট্রপতি ভেঙে দিতে পারেন।

133.🇮🇳🗣️🚩ভারতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচন পদ্ধতি টি আয়ারল্যান্ড দেশের সংবিধান থেকে গৃহীত।

134.🗣️ভারতের সংবিধানের অভিভাবক সুপ্রিমকোর্ট।

135.🇮🇳 সংবিধান সংশোধন-এখনো অবধি ভারতীয় সংবিধান 104 বার সংশোধন করা হয়েছে।ভারতীয় সংবিধানের 368 ধারা প্রয়োগ করে এই সংশোধন করা হয়ে থাকে।

🚩প্রথম সংশোধনী, 1951

ভূসম্পত্তি ও মধ্যসত্ত্বভোগী সংক্রান্ত রাজ্য বিধানসভার আইনকে বৈধতা দান করা হয়।

🚩24তম সংশোধনী, 1971

সংবিধানের ১৩ ও ৩৬৮ নং ধারাদুটি সংশোধন করে সংসদকে মৌলিক অধিকার সংশোধন করার অধিকার দেওয়া হয়। মৌলিক অধিকার সংশোধনী বিল সংসদে পাস হলে রাষ্ট্রপতি সেই বিলে সাক্ষর করতে বাধ্য থাকেন।

🚩26 তম সংশোধনী, 1971

প্রাক্তন দেশীয় রাজ্যের শাসকদের রাজন্যভাতা বিলোপ করা হয়।

🚩52 তম সংশোধনী, 1985

এই সংশোধনে দলত্যাগের সংজ্ঞা নিরুপিত হয়।

🚩61 তম সংশোধনী, 1988 কিন্তু প্রয়োগ করা হয় 1989

সংবিধানের ৩২৬ নং ধারাটি সংশোধন করে লোকসভা ও রাজ্য বিধানসভার ভোটদাতাদের বয়সসীমা সর্বনিম্ন ২১ থেকে কমিয়ে ১৮ বছর করা হয়।

🚩77 তম সংশোধনী, 1995

এই সংবিধান সংশোধনী আইনবলে তফসিলি জাতি ও উপজাতির মানুষজনের চাকরিতে পদোন্নতির ক্ষেত্রে সংরক্ষণ বজায় রাখা হয়।

🚩91 তম সংশোধনী, 2003 প্রয়োগ 2004

🚩99 তম সংশোধনী, 2014

🚩 104 তম সংশােধনী,2020 জানুয়ারি 🙏

136.❤️ভারতীয় সংবিধানের 3টি-শাসনবিভাগ আইনবিভাগ ও বিচারবিভাগ,

137.❤️ভারতের সংবিধানের দুটি কক্ষ- উচ্চকক্ষ- রাজ্যসভা ও নিম্নকক্ষ- লোকসভা

Check Also

ভারতের বিখ্যাত কবিদের উপাধি

১. বিশ্বকবি : রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ২. বিদ্রোহী কবি : কাজী নজরুল ইসলাম ৩. স্বভাব কবি : গোবিন্দ দাস ৪. আদি কবি : কৃত্তিবাস ওঝা ৫. চারণ কবি : মুকুন্দ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *